আইসিসির চোখে আফগান ক্রিকেট ‘চ্যালেঞ্জিং পরিস্থিতি’

This News is Presented by Shyam Sundar Jewellers

শান্তি রায়চৌধুরী : কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে আফগানিস্তানের ক্রিকেট। দেশটির নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার পর তালেবানরা মেয়েদের ক্রিকেটে নিষেধাজ্ঞা দেওয়ায় অনিশ্চয়তায় ঝুলছে তাদের ভবিষ্যৎ। তবে হুট করে কোনো সিদ্ধান্ত না নিয়ে আপাতত সেখানকার ক্রিকেট পর্যবেক্ষণ করতে চায় আইসিসি। বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্তা সংস্থাটির চেয়ারম্যান গ্রেগ বার্কলে জানিয়েছেন, ‘পরিস্থিতি তাদের জন্যও চ্যালেঞ্জিং’।

জটিলতার শুরু , তালেবানরা নতুন করে আফগানিস্তানে ক্ষমতা দখলের পর থেকে। আগের মেয়াদে দেশে ছেলে-মেয়ে সবার জন্যই ক্রিকেট নিষিদ্ধ করে রেখেছিল তারা। এবার ছেলেদের ক্রিকেট চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেয় তারা। তবে মেয়েদের ক্রিকেট নিয়ে অটল থাকে আগের অবস্থানেই। কিন্তু আইসিসির পূর্ণ সদস্য হওয়ার একটি মানদণ্ড হলো, নারী ক্রিকেটের একটি কার্যকর প্রোগ্রাম থাকতে হবে। ২০১৭ সালে আফগানিস্তানের ছেলেদেরকে দলকে টেস্ট মর্যাদা দেওয়ার সময় শর্ত দেওয়া হয়েছিল যে, সেখানে মেয়েদের দল গড়তে হবে এবং মেয়েদের ক্রিকেটের উন্নয়নে কাজ করতে হবে।

This news is sponsored by STP Tax Consultant

মেয়েদের ক্রিকেট নিয়ে আফগানিস্তানের কঠিন অবস্থানে প্রতিবাদ করে অস্ট্রেলিয়া। ‘সবার জন্য খেলা’ নীতিতে বিশ্বাসী ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া স্থগিত করে দেয় আফগানিস্তান ছেলে দলের বিপক্ষে তাদের একমাত্র টেস্ট ম্যাচটি। হোবার্টে আগামী ২৭ নভেম্বর হওয়ার কথা ছিল ওই ম্যাচ। শুধু তাই নয় , এমন পদক্ষেপে সমালোচনা করেছেন প্রাক্তন -বর্তমান অনেক ক্রিকেটারই। আফগানিস্তান নারী ক্রিকেটে তালেবানদের হস্তক্ষেপের কারণে দাবি উঠছে দেশটির টেস্ট মর্যাদা বাতিলের। কোনো দেশের টেস্ট মর্যাদা কেড়ে নিতে হলে ১৭ সদস্যের আইসিসি বোর্ডের দুই-তৃতীয়াংশ ভোট প্রয়োজন।

এখনই সে পথে এগোচ্ছে না আইসিসি। আফগান ক্রিকেট পর্যবেক্ষণের জন্য সম্প্রতি হওয়া বোর্ড সভায় একটি কমিটি গঠন করে তারা। যার প্রধানের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে ইমরান খওয়াজাকে। তার সঙ্গে আছেন রস ম্যাককলাম, লসন নাইডু ও রমিজ রাজা। আফগানিস্তান ক্রিকেট নিয়ে আগামী মাসে তারা প্রতিবেদন জমা দিবেন। এর ওপর অনেকটাই নির্ভর করবে আফগানদের ক্রিকেট ভাগ্য। এই মুহূর্তে অপেক্ষা করা ছাড়া আর কোনো পথ নেই বলে জানিয়েছেন আইসিসি প্রধান বার্কলে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

20 − fifteen =