হলদিয়ায় উদ্ধার আহত মাছমুরাল পাখি

This News is Presented by Shyam Sundar Jewellers

নিজস্ব প্রতিনিধি, হলদিয়া : হলদিয়ার চৈতন্যপুরের লালপুরে একটি মাছের ভেড়িতে উদ্ধার হল অস্প্রে প্রজাতির একটি আহত পাখি।

 

This news is sponsored by STP Tax Consultant

 

মঙ্গলবার সকালে স্থানীয় বাসিন্দা তপন বর্মনের মাছের ভেড়িতে আহত অবস্থায় পাখিটিকে দেখতে পেয়ে বনদপ্তরে খবর দেন স্থানীয় যুবক পাখিপ্রেমী ধ্রুব সিমলাই। তারপরই হলদিয়ার বালুঘাটা বিট অফিসের কর্মীরা আহত পাখিটিকে উদ্ধার করে নিয়ে যান। পূর্ব মেদিনীপুরের জেলা বনাধিকারিক অনুপম খান বলেন, ‘আহত অবস্থায় একটি অস্প্রেকে উদ্ধার করা হয়েছে। তার চিকিৎসা চলছে। পাখিটি কোনও কারণে ডানায় চোট পেয়ে উড়তে পারছিলনা।’ অস্প্রে প্রজাতির। স্থানীয়ভাবে পাখিটি মাছমুরাল নামে পরিচিতি।

পাখিটির বিজ্ঞানসম্মত নাম ‘প্যান্ডিয়ন হ্যালিয়েটাস’। মূলত উত্তর আমেরিকায় এদের বসবাস। তবে ভারত সহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে অস্প্রের দেখা মেলে। অনেকে একে সুমুদ্র ঈগলও বলে থাকেন।মাথা সাদাটে, পিঠ কালচে বাদামি। ঘাড়ের পিছনের টিকি আছে। ডানা লম্বা। লেজ কালচে ডোরা ও বর্গাকার। কালো ঠোঁটের ওপর-পাটির আগা লম্বা ও বড়শির মত বাঁকানো। নাকের ছিদ্র ছোট। পা খাটো। চোখ হলদে। আঙুল লম্বা ও খুব শক্ত। লম্বা আঙুলের তলায় কাঁটার মতো আঁশ থাকে। নখ বেশ লম্বা ও বাঁকানো। ধারালো নখের সাহায্যে বড় বড় মাছ শিকার করে। মূলত নদী, উপকূল ও মোহনায় বিচরণ করে মাছমুরাল পাখি। এরা একা থাকতে পছন্দ করে। শিকার ধরেও একাই খায়। কোনও খুঁটিতে বসে বা আকাশে বৃত্তাকারে ঘুরে ঘুরে জলের শিকার খোঁজে। জলে ঝাঁপ দিয়ে পায়ের নখের মাধ্যমে সহজেই শিকার ধরে ফেলে।

নিজের দেহের ওজনের চেয়েও বেশি ওজনের মাছ শিকার করতে পারে এরা। এদের খাদ্যতালিকায় রয়েছে শুধুমাত্র মাছ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

two + four =