পৌষের শুরুতেই জাঁকিয়ে শীতে কাঁপছে রাজ্য

This News is Presented by Shyam Sundar Jewellers

পৌষের শুরুতেই জাঁকিয়ে শীতে কাঁপছে রাজ্য। উত্তর থেকে দক্ষিণ রাজ্যজুড়ে শীতে জবুথবু বাংলা। আজ মরসুমের শীতলতম দিন। যা সর্বোচ্চ তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে ৪ ডিগ্রি কম। এক লাফে কলকাতার তাপমাত্রা নেমে গেল ১১ ডিগ্রিতে। আজ মরসুমের শীতলতম দিন। যা সর্বোচ্চ তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে ৪ ডিগ্রি কম।  অবাধ উত্তুরে হাওয়া চলবে আরও ২৪ ঘণ্টা ৷ বিক্ষিপ্ত ঘন কুয়াশা উত্তরবঙ্গে। কলকাতায় পরিষ্কার আকাশ। সকালেই জমিয়ে শীতের আমেজ। আগামী কয়েকদিন শীতের প্রভাব আরও বাড়বে। আপাতত বৃষ্টির কোনও সম্ভাবনা নেই। বাংলা জুড়েই শীতের প্রভাব। জেলায় আরও কম তাপমাত্রা। দক্ষিণের ৫ জেলায় শৈত্যপ্রবাহের ইঙ্গিত। অবাধ উত্তুরে হাওয়া। পশ্চিমী ঝঞ্ঝা সরে যাওয়ার ফলে হিমেল উত্তুরে হাওয়ার গতিপথ অবাধ। যার ফলে আরও নামবে তাপমাত্রা।

কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গে মূলত পরিষ্কার আকাশ থাকবে। কলকাতা,পূর্ব মেদিনীপুর উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনাতেও পরিষ্কার আকাশ। কলকাতায় আজ পরিষ্কার আকাশ। রেকর্ড পারদ পতনে কাঁপছে রাজ্যের জেলাগুলিও। কৃষ্ণনগর, আসানসোল, বাঁকুড়া, পুরুলিয়ার মতো শহরেও অনেকটা কমেছে তাপমাত্রা। দার্জিলিঙে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ঘরে রয়েছে তাপমাত্রা। কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা শনিবার ছিল ১৩ দশমিক ৫। যা স্বাভাবিকের থেকে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস কম।

This news is sponsored by STP Tax Consultant

দক্ষিণবঙ্গের কোনও কোনও জেলায় তাপমাত্রা সপ্তাহশেষে ১২ ডিগ্রির নীচে নামে। উত্তরবঙ্গের জেলায় শীতের আমেজ ক্রমশ বাড়বে। শুষ্ক আবহাওয়া উত্তরবঙ্গেও। আগামী কয়েকদিন তাপমাত্রার তারতম্যে জলীয়বাষ্প থাকায় কুয়াশা হতে পারে। উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে কুয়াশার সম্ভাবনা বেশি।
আগামী কয়েকদিন ঘন কুয়াশা হবে রাজধানী দিল্লি, পঞ্জাব, হরিয়ানা এবং চন্ডিগড়ে। ঘন কুয়াশার সর্তকতা অসম, মেঘালয়, নাগাল্যান্ড, মণিপুর, মিজোরাম এবং ত্রিপুরাতে। কুয়াশা হবে বিহার ঝাড়খন্ড এবং পূর্ব ও উত্তর পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলিতেও। গ্রাউন্ড ফ্রস্টের পরিস্থিতি পঞ্জাব, হরিয়ানা, চন্ডিগড় এবং উত্তর রাজস্থানে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

two × three =