বছরের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকেও অগ্রগতির ধারা অব্যাহত বন্ধন ব্যাঙ্ক এর

This News is Presented by Shyam Sundar Jewellers

দেশের অগ্রণী বন্ধন ব্যাঙ্ক চলতি ২০২১-২২ অর্থবর্ষের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের আর্থিক ফলাফল আজ ঘোষণা করল। সঙ্কটজনক পারিপার্শিক ও অর্থনৈতিক অবস্থা উন্নতির সাথে সাথে ব্যাঙ্কও তার ব্যবসা বৃদ্ধির ধারা অব্যাহত রাখতে পেরেছে।

 

This news is sponsored by STP Tax Consultant

 

৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ অবধি বন্ধন ব্যাঙ্কের মোট ব্যবসা (আমানত ও ঋণ) গত আর্থিক বছরের তুলনায় ১৫ শতাংশ বেড়ে হয়েছে ১.৬৪ লক্ষ কোটি টাকা। ব্যাঙ্কের ছয় বছরের কার্যকালে দেশ জুড়ে ৫৬১৮ গুলি ব্যাঙ্কিং আউটলেট ও শাখার মাধ্যমে ২.৪৩ কোটি গ্রাহককে পরিষেবা দিয়ে চলেছে বন্ধন ব্যাঙ্ক। বন্ধন ব্যাঙ্কের মোট কর্মী সংখ্যা এখন ৫২৯৭৬

বন্ধন ব্যাঙ্কের মোট আমানতের বহর গত আর্থিক বছরের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের তুলনায় চলতি আর্থিক বছরের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে ২৪ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে । বর্তমানে মোট আমানতের পরিমান ৮১৮৯৮ কোটি টাকা। গত অর্থবর্ষের তুলনায় কাসা ( কারেন্ট অ্যাকাউন্ট সেভিংস অ্যাকাউন্ট) ৪৫ শতাংশ হারে বৃদ্ধি পেয়েছে এবং মোট আমানতের মধ্যে এখন কাসা অনুপাত হল ৪৫ শতাংশ। এই সময়কালে ব্যাঙ্কের রিটেল আমানত উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে , গত অর্থবর্ষের তুলনায় তা ৩৫ শতাংশ হারে বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ৬৮৭৮৭ কোটি টাকা। মোট আমানত-এর মধ্যে রিটেল ব্যবসার অনুপাত বৃদ্ধি পেয়েছে ৮৪ শতাংশ হারে।

বন্ধন ব্যাঙ্কের ঋণের খাতাতেও বৃদ্ধি হয়েছে। গত অর্থবর্ষের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে গ্রাহকদের প্রদত্ত ঋণের তুলনায় চলতি অর্থবর্ষের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে প্রদত্ত ঋণের পরিমান ৬.৬ শতাংশ বৃদ্ধি হয়েছে। মোট প্রদত্ত ঋণের পরিমান এখন ৮১৬৬১ কোটি টাকা। ক্যাপিটাল অ্যাডিকোয়েসি রেশিও (সিএআর) যে কোনও ব্যাঙ্কের সুস্থিরতা প্রতিফলিত করে। বন্ধন ব্যাঙ্কের সিএআর এখন ২০.৪ শতাংশ, যা প্রয়োজনীয় মাত্রার তুলনায় অনেকটাই বেশি।

বৃদ্ধির পরবর্তী পর্যায়ে বন্ধন ব্যাঙ্ক সকল ভারতবাসীর আর্থিক প্রয়োজনীয়তা পূরণ করার মতো প্রতিষ্ঠানে পরিণত হতে চায় যাতে সব ধরনের লেনদেন – এমনকি ডিজিটাল লেনদেন ও করা সম্ভব হয়, সব ধরণের পরিষেবা বা পণ্যের জন্য।

এই রূপান্তরের জন্য ব্যাঙ্ক যথেষ্ট পরিমাণে বিনিয়োগ করেছে, যার সুফল আগামী বছরগুলিতে দৃশ্যমান হবে। ব্যাঙ্ক এসএমই ঋণ, স্বর্ণ ঋণ , ব্যক্তিগত ঋণ এবং গাড়ি ঋণের মতো ক্ষেত্রে পোর্টফোলিও বিস্তার করেছে। দেশব্যাপী আরও বেশি ভারতীয়দের কাছে বিশ্বমানের ব্যাঙ্কিং পরিষেবা পৌঁছে দেওয়ার জন্য পূর্ব ও উত্তর-পূর্ব ভারতের বাইরে শাখাগুলির সম্প্রসারণ করা হয়েছে। ব্যাঙ্ক উন্নত প্রযুক্তির পরিকাঠামো বাস্তবায়ন করছে যা গ্রাহকদের নিরবিচ্ছন্ন এবং সুরক্ষিত ব্যাঙ্কিং পরিষেবাগুলি প্রদানে সহায়তা করবে।

ব্যাঙ্কের আর্থিক ফলাফল প্রসঙ্গে বন্ধন ব্যাঙ্কের ম্যানেজিং ডিরেক্টর এবং সিইও শ্রী চন্দ্রশেখর ঘোষ বলেন, “এই অর্থবর্ষের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে বন্ধন ব্যাঙ্ক এর ব্যবসা উল্লেখযোগ্য বৃদ্ধি পেয়েছে। আমাদের সম্মানীয় গ্রাহকগণ আমাদের উপর যে অটুট বিশ্বাস দেখিয়েছেন তাতে আমরা গর্বিত। আমি ব্যাঙ্কের গ্রাহকদের ধন্যবাদ জানাই তাঁদের সহযোগিতার জন্য যা বন্ধন ব্যাঙ্ককে লক্ষ লক্ষ ভারতবাসীর কাছে পছন্দের ব্যাঙ্কিং পার্টনার করে তুলেছে। “

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

3 × 1 =