সাবধান থাকুন এটিএম কার্ড জালিয়াতি থেকে! জেনে নিন বিপদ এড়াতে কি করবেন

ছবি-প্রতীকী
This News is Presented by Shyam Sundar Jewellers

শান্তি রায়চৌধুরী : একদিকে যেমন সবকিছু ডিজিটালাইজড হচ্ছে, ঠিক তেমনই পাল্লা দিয়ে বাড়ছে সাইবার ক্রাইমও। আর এই সাইবার জালিয়াতির দুনিয়ায় সফ্ট টার্গেট হচ্ছে এটিএম কার্ড। একের পর এক অ্যাকাউন্ট থেকে উধাও হয়ে যায় লাখ লাখ টাকা। এটিএম কার্ড জালিয়াতির হাত থেকে বাঁচতে তাই মেনে চলুন কিছু নিয়ম।

 

This news is sponsored by STP Tax Consultant

 

বিপদ এড়াতে সবসময় খেয়াল রাখুন এগুলো:

* নির্দিষ্ট সময়ের পর পর এটিএম কার্ডের পিন পরিবর্তন করুন।
* কার্ডে পিন নম্বর লিখে রাখবেন না, কাউকে কার্ড দেবেন না। এমনকি নিজেও পিন নম্বর কাউকে বলবেন না।
* আপনি যখন এটিএমের ভিতরে থাকবেন, তখন অন্য কাউকে প্রবেশ করতে দেবেন না।
* এটিএম মেশিনে পিন দেওয়ার সময় হাত দিয়ে আড়াল করে পিন দিন। যাতে অন্য কারোর নজরে না পড়ে।
* এটিএম থেকে টাকা তোলার পর যে স্লিপ আসে তা কাউন্টারে ফেলে আসবেন না।
* এটিএমের স্ক্রিন যতক্ষন না পুরনো অবস্থায় ফিরে আসছে, ততক্ষণ পর্যন্ত অপেক্ষা করবেন।
* নতুন কার্ড নেওয়ার পর পুরনো কার্ড পুরোপুরি নষ্ট করে ফেলুন।

যা করবেন না:
* ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের নম্বর, পিন, সিভিভি (কার্ডের পিছনে থাকা তিন সংখ্যার নম্বর, যা নেট-লেনদেনে কাজে লাগে) ওয়ান টাইম পাসওয়ার্ড কাউকে দেবেন না।
* অনেক সময়ে ব্যাঙ্ক বা অন্য কোনও বিশ্বস্ত সংস্থার নাম করে ফোন, ই-মেল ইত্যাদির মাধ্যমে প্রতারক কার্ডের পিন নম্বর জানার চেষ্টা করে। ভুলেও সেই ফাঁদে পা দেবেন না। মনে রাখবেন, আপনার তথ্য এমনিতেই ব্যাঙ্কের কাছে আছে। তারা তা নতুন করে চাইবে কেন?
* পিন নম্বর মুখস্থ রাখুন। লিখে রাখলে, অবশ্যই সাংকেতিক ভাবে।
* কার্ড ব্যবহারে অপরিচিতের সাহায্য নেবেন না।
* কার্ডে জিনিসপত্র কেনাকাটার সময়ে সাবধান থাকুন। দোকানে কেনাকাটা বা রেস্তরাঁয় খাওয়াদাওয়ার পরে কার্ড সোয়াইপ করানোর জন্য তা অন্য কারও হাতে দেবেন না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

4 × 2 =