ছটপুজোকে কেন্দ্র করে মিলন মেলা বীরভূমে

This News is Presented by Shyam Sundar Jewellers

নিশির কুমার হাজরা, বীরভূম: বীরভূমের বিভিন্ন প্রান্তে দশকের পর দশক ধরে বসবাস বহু অবাঙালি ও হিন্দি ভাষাভাষীর মানুষদের। এই সকল মানুষেরা প্রতিবছর নিজেদের এলাকায় ছটপুজোর আয়োজন করে থাকেন। করোনাকালে গত বছর থেকে অন্যান্য সামাজিক ও ধর্মীয় অনুষ্ঠানের মত ছটপুজোর ক্ষেত্রেও নানান কাটছাঁট শুরু হয়েছে। তবে সেই সকল কাটছাঁটের মধ্যেই এই ছটপুজো মিলনমেলায় পরিণত হয়েছে বীরভূমে।

 

This news is sponsored by STP Tax Consultant

বীরভূমে যে সকল জায়গায় ধুমধাম করে ছটপুজোর আয়োজন করা হয়ে থাকে তার মধ্যে অন্যতম হল বীরভূম ও পশ্চিম বর্ধমানের সংযোগস্থলে ভীমগড়ের অজয় নদে পুজোর আয়োজন।

এই নদীবক্ষে প্রতি বছর দুই জেলার হিন্দি ভাষাভাষী মানুষেরা ছটপুজোয় মেতে ওঠেন। এই পুজোকে কেন্দ্র করে এখানে বসে ছোট আকারে অস্থায়ী মেলা। বুধবার বিকাল থেকেই এখানে বিভিন্ন প্রান্ত থেকে শুরু হয়েছে বহু মানুষের আনাগোনা। কেউ এসেছেন পুজোর জন্য, কেউ আবার পুজো দেখতে।

অজয় নদের তীরে এই পুজোর আয়োজন হওয়ায় প্রশাসনের তরফ থেকে সমস্ত রকম সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। আগত মানুষদের সদা সতর্ক থাকার জন্য সবসময়ই প্রশাসনের তরফ থেকে মাইকিং করা হচ্ছে। এছাড়াও এখানকার পুজো কমিটির সদস্যরাও সমস্ত রকম সতর্কতা অবলম্বনে সদা সতর্ক।

ভীমগড়ের এই অজয় নদের তীর ছাড়াও একইভাবে ধুমধাম করে ছট পুজো করা হয়ে থাকে সিউড়ি, রামপুরহাট, সাঁইথিয়া, বোলপুর, মুরারই সহ বিভিন্ন এলাকায়। এই সকল এলাকায় স্থানীয় জলাধারে বুধবার সূর্যাস্তের আগে পুজো দিতে হাজির হন বহু মানুষ। প্রতিটি এলাকায় পুজোকে কেন্দ্র করে সুন্দরভাবে সাজানো হয়েছে ঘাট। পাশাপাশি প্রতিটি জায়গাতেই বসেছে অস্থায়ী মেলা। এছাড়াও রয়েছে আলোকসজ্জা।

ছট পুজোয় প্রধান আরাধ্য দেবতা হলেন সূর্য। পঞ্জিকা অনুসারে কার্তিক মাসের শুক্লপক্ষের চতুর্থী তিথিতে আরাধ্য দেবতা উদয় ও অস্তগামী সূর্যের পুজো করা হয়ে থাকে। সেইমতো বুধবার অস্তগামী সূর্যের আরাধনার পাশাপাশি আজ অর্থাত্‍ বৃহস্পতিবার সূর্যের আরাধনা করা হয়।

পশ্চিম মেদিনীপুরে তৃণমূল সাংসদ জুন মালিয়া ওই ছটপূজোয় নিজের হাতে পূজার্ঘ্য নিবেদন করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

16 − 5 =