ওমিক্রন আতঙ্কে স্ত্রী ও দুই সন্তানকে খুন করে পলাতক চিকিৎসক

ছবি-প্রতীকী
This News is Presented by Shyam Sundar Jewellers

ওমিক্রন আতঙ্কে স্ত্রী ও দুই সন্তানকে খুন করে পলাতক এক চিকিৎসক।

 

This news is sponsored by STP Tax Consultant

 

 

উত্তরপ্রদেশের কানপুরের ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ একটি ডায়েরি উদ্ধার করেছে। ডায়েরি থেকে জানা গেছে, ওই চিকিৎসক ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে খুবই চিন্তিত ছিলেন। ডায়েরিতে লেখা রয়েছে, “ওমিক্রন সবাইকে মেরে ফেলবে। আমার অসচেতনতার জন্যই এমন একটা জায়গায় সমস্যা হয়ে আছে যেখান থেকে বেরনো মুশকিল।”

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ওই চিকিৎসকের নাম সুশীল কুমার। তিনি কানপুরের একটি হাসপাতালের ফরেন্সিক বিভাগের প্রধান। তিনি তাঁর স্ত্রী (৪৮), ১৮ বছরের ছেলে ও ১৫ বছরের মেয়েকে হত্যা করেন। এরপর নিজের ভাইকে মেসেজ পাঠিয়ে পুলিশে খবর দেওয়ার কথা বলেন। পুলিশ বা ভাই পৌঁছনোর আগেই পালিয়ে যান ওই চিকিৎসক।

খবর অনুযায়ী, ওই চিকিৎসক মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন।

ঘটনাস্থল থেকে তিনটি মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। সেগুলি ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়। ঘটনাস্থল থেকে একটি রক্তমাথা হাতুড়িও উদ্ধার হয়।

পুলিশের সন্দেহ, খুন করার পর আত্মহত্যা করেছেন চিকিৎসকও। এখনও কোনও হদিশ মেলেনি ওই চিকিৎসকের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

19 − eight =