স্বস্তি পেলেন তিন হেভিওয়েট, নারদ মামলায় অন্তর্বর্তী জামিন ফিরহাদ-শোভন-মদনের

This News is Presented by Shyam Sundar Jewellers

নারদ মামলায় কিছুটা স্বস্তি পেলেন তিন হেভিওয়েট। নারদা মামলায় অন্তর্বর্তী জামিন পেলেন ফিরহাদ, শোভন, মদনের। নারাদা কাণ্ডে আদালতে মঙ্গলবার হাজিরা দেয় মদন মিত্র, ফিরহাদ হাকিম, শোভন চট্টোপাধ্যায়। ২০ হাজার টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে জামিন মঞ্জুর করা হয়। দেশ ছাড়তে পারবেন না কেউই, শর্তসাপেক্ষে জামিন মঞ্জুর ফিরহাদ-শোভন-মদনের।

১ সেপ্টেম্বর ইডি ফিরহাদ মদনের বিরুদ্ধে চার্জশিট জমা দেয়। তার পর সমন জারি করে আদালত। তিনজনেই অন্তর্বর্তী জামিন পেয়েছেন বলে জানা গেছে। ফিরহাদ হাকিমের কন্যা জানান আইন যা বলেছে সেভাবে কাজ করছি আমরা। আজকে বাবা অন্তর্বর্তী জামিন পেয়েছেন। আবার যখন ডাকা হবে তখনই হাজিরা দেবেন। শোভন চট্টোপাধ্যায় বলেন প্রথম দিন থেকে আজ পর্যন্ত বিষয়টা দেখছেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। আজকে একটা ধাপ আমরা এগোলাম। বিচার ব্যবস্থার উপর আমার বিশ্বাস আছে।

This news is sponsored by STP Tax Consultant

এদিন আদালতে জামিন মঞ্জুর হওয়ার পর শোভন বলেন, “আমাদের ইশ্বরে বিশ্বাস আছে। আইনের ওপর বিশ্বাস রয়েছে। সিবিআই যেদিন নিয়ে গিয়েছিল, সেদিনও বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় ছিল। আমরা যেদিন ইডি দফতরে গিয়েছিলাম, সেদিনও ছিল, আজও রয়েছেন। আমাদের লড়াই এক সংগ্রাম। আমাদের কারোর প্রতি কোনও শত্রুতা নেই। ইশ্বর রয়েছে। আজকের দিনটা হল প্রমাণিত সত্য। যে ব্যক্তির কথা বলা হচ্ছে, তাঁকে আমি চোখেও দেখিনি। তাঁর সঙ্গে যোগাযোগের কোনও প্রশ্নই আসছে না। বহু ঝড় গেল। কেউ বুঝে করেছেন, কেউ না বুঝে ধারণায় করেছেন। বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে আমি কৃতজ্ঞ। তিনি যেভাবে পাশে দাঁড়িয়েছেন, তার জন্য আমি কৃতজ্ঞ।”

তবে এদিন তিন হেভিওয়েট হাজিরা দিলেও, আদালতে আসেননি অপর অভিযুক্ত আইপিএস সৈয়দ মহম্মদ হোসেন মির্জা। কেন তিনি আসেননি, সে প্রশ্ন তোলে ইডি। তাদের দাবি, মির্জার জামিন বাতিল করা হোক। ইডি-র তরফে আদালতে সওয়াল করা হয়, বাকিরা এসেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

twenty + seventeen =