মেসির বিরুদ্ধে ব্যালন ডি’অর ‘চুরির’ অভিযোগ, সায় দিয়ে শিরোনামে পর্তুগিজ উইঙ্গার!

This News is Presented by Shyam Sundar Jewellers

শান্তি রায়চৌধুরী: সপ্তম ব্যালন ডি’অর লিওনেল মেসির হাতে ওঠার পর থেকে পক্ষে-বিপক্ষে নানা আলোচনা চলছে। বিশেষ করে রবার্ট লেভানডোভস্কির হাতে এই পুরস্কার না দেখায় হতবাক গোটা জার্মানি। কিন্তু ২০১০ সালের পর প্রথমবার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর সেরা পাঁচের বাইরে থাকা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তার ভক্তরা। এমনকি এক ভক্তের অ্যাকাউন্টে মেসির বিরুদ্ধে রোনালদো ও লেভানডোভস্কির কাছ থেকে ব্যালন ডি’অর চুরির অভিযোগও করা হয়েছে, আর তাতে সায় দিয়ে খবরের শিরোনামে পর্তুগিজ উইঙ্গার।

সোমবার রাতে বায়ার্ন মিউনিখ স্ট্রাইকার লেভানডোভস্কিকে ৩৩ ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে সবচেয়ে বেশি ব্যালন ডি’অর জয়ে ব্যবধান বাড়িয়ে নেন মেসি। অন্যদিকে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ও পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী রোনালদো ৪৩৫ ভোট নিয়ে হন ষষ্ঠ। ৩৬ বছর বয়সী ফরোয়ার্ডের এমন অপ্রাপ্তিতে খুশি নন তার ভক্তরা। ইনস্টাগ্রামে ‘ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো- দ্য লিজেন্ডারি’ নামের এক ফ্যান অ্যাকাউন্টের পেজ রোনালদোর এই বছরের অর্জনের তালিকা প্রকাশ করে পোস্ট দেন।

This news is sponsored by STP Tax Consultant

রোনালদোও পেজটির ফলোয়ার, সেখানে দাবি করা হয়, মেসির এই জয় ‘চুরি, নোংরা আর লজ্জাজনক, এক কথায় দুঃখজনক।’ আরো বলা হয়, ‘যারা দেখেছে, বুঝতে পেরেছে। যথেষ্ট স্মার্টদের যে কেউ বুঝতে পারবে কে এর দাবিদার। অর্জন ছাড়া পুরস্কার পাওয়া মিথ্যা সুখ, কোনো গর্ব নেই। এই অ্যাওয়ার্ডগুলো ছাড়াও সিআরসেভেন সবসময় ইতিহাসের সেরা হয়ে থাকবেন।’

এই পোস্টে রোনালদো লাইক প্রতিক্রিয়া তো দিয়েছেনই, একই সঙ্গে কমেন্ট করেছেন পর্তুগিজ ভাষায় ‘ফ্যাক্টোস’। যার অর্থ দাঁড়ায় ‘এটাই সত্যি’। রোনালদোর এই কমেন্টে ১২ ঘণ্টার মধ্যে লাইক পড়েছে প্রায় ৩৪ হাজার। আর ওই ভক্তের পোস্টে লাইক ৬২ হাজারের বেশি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

one × 5 =