দুয়ারে রেশনে নতুন কর্মসংস্থান, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

This News is Presented by Shyam Sundar Jewellers

দুয়ারে রেশন প্রকল্প সূচনা করার সঙ্গে সঙ্গে নতুন কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি করে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দুয়ারে রেশন প্রকল্পের জন্য কর্মী প্রয়োজন। এক্ষেত্রে একা রেশন ডিলারদের পক্ষে সবটা করা সম্ভব নয়। সেকারণে রেশন ডিলাররা ২ জন করে কর্মী নিয়োগ করতে পারবেন বলে জানিয়েছে। অর্থাৎ রাজ্যে ২১ হাজার রেশন ডিলার ২ জন করে কর্মী নিয়োগ করতে পারবেন। তাঁদের ১০ হাজার টাকা বেতন দিতে হবে। সেই টাকার অর্ধেক দেবে রাজ্য সরকার। অর্ধেক রেশন ডিলারদের দিতে হবে বলে বলে প্রকাশ্যে ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

দুয়ারে রেশন প্রকল্প চালাতে ডিলারদের আরও সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী৷ তিনি জানিয়েছেন, রেশন পৌঁছে দেওয়ার জন্য গাড়ি কিনতে ডিলারদের এক লক্ষ টাকা করে ভর্তুকি দেবে রাজ্য৷ ডিলারদের গাড়ি না থাকলে ডিস্ট্রিবিউটাররা তাঁদের সহযোগিতা করবেন৷

This news is sponsored by STP Tax Consultant

দুয়ারে রেশন প্রকল্পের বিরোধিতা করে আদালতে গিয়েছিলেন বেশ কিছু রেশন ডিলার৷ মুখ্যমন্ত্রী অবশ্য স্পষ্ট করে দিয়েছেন, প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে গিয়ে কোনও রকম বাধা এলে সরকার বরদাস্ত করবে না৷
মঙ্গলবার রাজ্যের তরফে নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানেই ‘দুয়ারে রেশন’ প্রকল্পের সূচনা করেন মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি একটি হোয়াটস অ্যাপ নম্বর নম্বর চালু করেন। কে রেশন পেলেন, কে পেলেন না, কার রেশন কার্ড-আধার সংযুক্তিকরণ বাকি রয়ে গিয়েছে, রেশনের বিলি করা সামগ্রীর মান কেমন, এই সংক্রান্ত যাবতীয় অভাব-অভিযোগ ওই হোয়াটসঅ্যাপ নম্বরে সরাসরি জানাতে পারবে রাজ্যবাসী।

উদ্বোধন কর্মসূচি শেষে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “বাংলার সরকার মানবিক। রাজ্যবাসীর স্বার্থে রেশন বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেবে। বাংলার প্রকল্প অন্য রাজ্যের জন্য মডেল।” তিনি আরও বলেন, “রেশন বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেওয়াটা একটা মহৎ কাজ। এটা মানুষের সেবার কাজ। রাজ্যে ১০ কোটি মানুষ বিনামূল্যে রেশন পাচ্ছেন, যা অন্য কোথাও হয় না।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

seven − 2 =