২৯ নভেম্বর সংসদ অভিযান প্রত্যাহার করল কৃষকরা

This News is Presented by Shyam Sundar Jewellers

২৯ নভেম্বর হচ্ছে সংসদ অভিযান, ট্রাক্টর মার্চ প্রত্যাহার করল কৃষকরা। কৃষকদের সাফ বক্তব্য, ন্যূনতম সমর্থন মূল্য, বিক্ষোভের সময় কৃষকদের মৃত্যু এবং লখিমপুর নিয়ে কথা বলতে হবে সরকাকে। এই ইস্যুগুলি নিয়ে কৃষকদের সঙ্গে সরকার আলোচনা না করলে বিক্ষোভ জারি থাকবে বলে হুঁশিয়ারি কৃষক নেতাদের।

২৯ নভেম্বর শুরু হচ্ছে সংসদের শীতকালীন অধিবেশন। সেই অধিবেশনেই কৃষি আইন প্রত্যাহারের আইনি প্রক্রিয়া শুরু হবে বলে জানিয়েছিলেন তিনি। ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা কৃষি আইনের অনুমোদন দিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী শনিবারই একটি কমিটি গড়ে দিয়েছেন। সেই কমিটি কৃষকদের উন্নয়নের জন্য কাজ করবে বলে জানিয়ছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেই কমিটি গড়ার পরেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী অনুরোধ জানিয়ছিলেন কৃষকরা যেন আন্দোলন প্রত্যাহার করে নেন।
২৯ নভেম্বর কৃষকরা দিল্লি চলো কর্মসূচি প্রত্যাহার করেনি। সেটা জারি রেখেছিল তাঁরা। মনে করা হচ্ছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তাঁদের অনুরোধ করার পরেই কৃষকরা এই সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছে।

This news is sponsored by STP Tax Consultant

এমএসপি ছাড়াও কৃষকদের দাবি ছিল আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে রুজু হওয়া মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। সেই দাবির প্রেক্ষিতে নরেন্দ্র সিং তোমরের বক্তব্য, ‘প্রতিবাদের সময় নথিভুক্ত করা মামলাগুলি তো রাজ্য সরকারের এক্তিয়ারের অধীনে আসে এবং এই বিষয়ে চূড়ান্ত তারা সিদ্ধান্ত নেবে। রাজ্য সরকারগুলি তাদের রাজ্য নীতি অনুসারে ক্ষতিপূরণের বিষয়েও সিদ্ধান্ত নেবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

four × two =