গভীর রাতে বাইক দুর্ঘটনা, মৃত ২ স্বাস্থ্যকর্মী

This News is Presented by Shyam Sundar Jewellers

নিশির কুমার হাজরা, বীরভূম: জীবনের চলার পথে কখন যে দুর্ঘটনা নেমে আসে কেউ বলতে পারে না।  মর্মান্তিক এক দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল দুজনের, গুরুতর জখম এক চিকিত্‍সক।

 

This news is sponsored by STP Tax Consultant

 

ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের সিউড়ির হনুমান মন্দির সংলগ্ন এলাকায়। আহত চিকিত্‍সক চিকিৎসাধীন রয়েছেন কলকাতার পিজি হাসপাতালে। জানা গিয়েছে, চিকিত্‍সক শুভদ্বীপ ঘোষ, সিউড়ির বেসরকারি হাসপাতালের আইসিসিইউয়ের টেকনিশিয়ান কাঞ্চন চক্রবর্তী ও অন্য কর্মী সৌম্যদ্বীপ শর্মা সোমবার রাত প্রায় পৌনে একটা নাগাদ বাইকে করে বেরিয়েছিলেন হাসপাতাল থেকে।

 

সেই সময় সিউড়ি ১ এর পল্লি হনুমান মন্দির এলাকায় ঘটে ওই দুর্ঘটনা। আচমকা একটি বিদ্যুতের খুঁটিতে ধাক্কায় দেয় বাইকটি। শব্দ পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে ছুটে যান স্থানীয়রা। এলাকার বাসিন্দারা জানিয়েছেন, ঘটনাস্থলেই মৃত্য হয় একজনের। গুরুতর জখম বাকি দুজনকে নিয়ে যাওয়া হয় সিউড়ির হাসপাতালে। সেখানে মৃত্যু হয় আরও একজনের। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় কলকাতার হাসপাতালে পাঠানো হয় চিকিত্‍সক শুভদ্বীপকে। বর্তমানে সেখানেই চিকিত্‍সা চলছে তাঁর।

কীভাবে ঘটল দুর্ঘটনা? স্থানীয়দের দাবি, মদ্যপ ছিলেন ওই বাইকের তিনজনই। সত্যিই কি তাঁরা মদ্যপ ছিলেন? কীভাবে ঘটল দুর্ঘটনা? বাইকের কোনও যান্ত্রিক ত্রুটি ছিল কি? দুর্ঘটনার সময় গতিবেগ কত ছিল, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, দেহদুটি ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট হাতে এলেই বোঝা যাবে তাঁরা আদৌ মদ্যপ ছিলেন কি না। সৌমদ্বীপ ও কাঞ্চনের মৃত্যুর খবর বাড়িতে পৌঁছতেই কান্নায় ভেঙে পড়েছে তাদের পরিবার বলে জানা গিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

12 − five =