প্যারিস অলিম্পিকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হবে নদীতে! এমন ঘটনা নজিরবিহীন!

This News is Presented by Shyam Sundar Jewellers

শান্তি রায়চৌধুরী: গ্রীষ্মকালীন টোকিও অলিম্পিকের পর্দা নামার সঙ্গে সঙ্গে নির্ধারণ হয়ে যায় আগামী অলিম্পিকের আসর বসতে যাচ্ছে ফ্রান্সের প্যারিসে। ২০২৪ গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকের আসর বসবে প্যারিসে। যার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হবে ২০২৪ সালের ২৬ জুলাই।

মজার ব্যাপার হলো, আধুনিক যুগে ইতিহাসের পাতায় এখন পর্যন্ত অলিম্পিক গেমসের যত উদ্বোধনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে তার সবই কোনো না কোনো স্টেডিয়ামে হয়েছে। কিন্তু প্যারিস অলিম্পিকের আয়োজক কমিটি চিরাচরিত এই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে। কোনো স্টেডিয়ামে নয়, খোলা জায়গায় প্যারিসের লা সেইন নদীতে অনুষ্ঠিত হবে প্যারিস অলিম্পিকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।

This news is sponsored by STP Tax Consultant

২০২৪ প্যারিস অলিম্পিক আয়োজক কমিটির প্রধান টনি এসট্যাঙ্গুয়েট বলেন, ‘এমন ঘটনা নজিরবিহীন। কারণ এটাই অলিম্পিকের প্রথম কোনো আসর যেখানে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান স্টেডিয়ামের বাইরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আমাদের উদ্দেশ্য ও লক্ষ্য একটাই, যেন আমরা এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে আমাদের বার্তা সবার কাছে পৌঁছে দিতে পারি। স্টেডিয়ামের বাইরে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান আয়োজন করা হলে, দশগুণ বেশি মানুষ অংশ নিতে পারবে। আমরা চাই কোনো টিকিট ছাড়াই বিনামূল্যে সবাই যেন এই অনুষ্ঠান উপভোগের সুযোগ পায়।’

১৬০টি বোট নদীতে অবস্থান করবে অ্যাথলিটদের স্বাগত জানাতে। প্রায় সাড়ে দশ হাজার অ্যাথলিট অংশ নেবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের প্যারেড ট্র্যাকে। টনি এসট্যাঙ্গুয়েট বলেন, আমরা দিনটির জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি। লা সেইন নদীতে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান কেমন হবে সেটা ভেবে সত্যিই দারুণ লাগছে। অ্যাথলিটরা বোট নিয়ে নদীর ওপর অবস্থান করবে। প্যারেডে অংশ নেবে। অ্যাথলিটদের প্যারেড ট্র্যাকে পরিণত হবে এই লা সেইন নদী। এ যেন অন্যরকম এক রোমাঞ্চ। এদিকে, প্যারিসের মেয়র হিডালগো মনে করেন, অলিম্পিকের মতো ক্রীড়া আসরে অংশ নেওয়ার অধিকার সবার আছে। আর তাই এমন উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে বলে বিশ্বাস তার।

মেয়র এন হিডালগো বলেন, প্যারিসের মতো একটা শহরে এমন কোনো ক্রীড়া আসর আমরা আয়োজন করতে পারি না, যেখানে শুধু এখানকার মানুষই অংশ নেবে কিংবা তারাই দেখবে। বরং প্যারিসের মতো শহরে আমরা চাই সবাই আসুক, বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে যাক এর প্রসারতা। আর এর বিকল্প পথ হতে পারে অলিম্পিক গেমসের মত জনপ্রিয় ক্রীড়া আসরগুলো। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান তারই একটা অংশ। বিশ্বের বুকে অনন্য উদাহরণ হতে পারে এটি।’

এ ছাড়াও, উদ্বোধনী অনুষ্ঠান যেন প্যারিসের যেকোনো প্রান্ত থেকে সবাই উপভোগ করতে পারে, সেজন্য ৮০টিরও বেশি জায়ান্ট স্ক্রিনের ব্যবস্থা করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

seven − 4 =