১০৫ বছরের শিকড় হারানোর মুখে শান্তিনিকেতনের ‘আলাপনী মহিলা সমিতি’

This News is Presented by Shyam Sundar Jewellers

নিশির কুমার হাজরা,বীরভূম:  বীরভূমের শান্তিনিকেতনে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ঐতিহ্যবাহী স্থানের উপর একের পর এক কার্যকলাপ নিয়ে বিতর্ক বা দ্বন্দ্ব দেখা যাচ্ছেই। রবীন্দ্রনাথ মনে করতেন আশ্রমের কাজে মহিলাদের কল্যাণস্পর্শ পেলে তা পূর্ণতা অর্জন করবে। তাঁর সভাপতিত্বেই ১৯১৬ সালে শান্তিনিকেতনে গঠিত আলাপিনী মহিলা সমিতির পথচলা শুরু।

 

This news is sponsored by STP Tax Consultant

প্রতিমা দেবী, দ্বিজেন্দ্রনাথ ঠাকুরের পুত্রবধূ হেমলতা দেবী, ক্ষিতিমোহন সেনের পত্নী কিরণবালা দেবী, অমর্ত্য সেনের মা অমীতাদেবী সহ বহু বিশিষ্ট মহিলা ছিলেন সেই সময়ের উদ্যোক্তা। আলাপিনী মহিলা সমিতির নামকরণ করেছিলেন দ্বিজেন্দ্রনাথ ঠাকুর। এখানে নিয়মিত হাতে লেখা পত্রিকা প্রকাশের পাশাপাশি আশ্রমের ছাত্রছাত্রীদের খাওয়া-দাওয়ার বিষয়ে লক্ষ্য রাখতেন এই মহিলা সমিতি।সমিতির পরিচালনায় প্রতি বৎসর নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হত।

সমিতিকে আশ্রমের থেকে বিচ্ছিন্ন কোনো সত্তা হিসাবে তো দেখা হয়নি কোনোদিন” – বলছিলেন আলাপিনী মহিলা সমিতির বর্তমান সম্পাদিকা জয়তী ঘোষ। ক্ষোভ ও দুঃখের ছাপ গলায় স্পষ্ট। গতবছর ১০ ডিসেম্বর ‘আলাপিনী মহিলা সমিতি’-কে ইউনিভার্সিটি ক্যাম্পাসের মধ্যে ‘নতুন বাড়ি’-র ঘরটি থেকে আসবাবপত্র খালি করে দেওয়ার তথা সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বিশ্বভারতীর বর্তমান উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী।

সেই দিনই আলাপিনী মহিলা সমিতির সমস্ত জিনিসপত্র বিশ্বভারতীর তত্ত্বাবধানে রেখে দেয় কর্তৃপক্ষ।বুধবার আলাপিনী মহিলা সমিতির সদস্যদের হাতে তাদের অফিসের সমস্ত জিনিসপত্র ফেরত দিয়ে দেওয়া হয় তথা জিনিস পত্র সরিয়ে ঘর খালি করা হয়। মনের দুঃখে সদস্যরা অসহায় অবস্থায় তাদের সমস্ত জিনিসপত্র ফেরত নিয়ে চলে যায় ।

দীর্ঘ ১০৫ বছরের প্রাচীন মহিলা সংগঠন ‘আলাপিনী মহিলা সমিতি’। সমিতির সদস্য বলতে বিশ্ববিদ্যালয়েরই ছাত্রী, শিক্ষিকা বা প্রাক্তনীরা মূলত জড়িত ছিলেন।সমিতির সহ সম্পাদিকা মনীষা বন্দ্যোপাধ্যায় ও একরাশ ক্ষোভ দুঃখের সাথে ব্যাক্ত করেন। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্নেহধন্য ১০৫ বছরের ঐতিহ্যশালী আলাপিনী মহিলা সমিতি, সদস্যরা এবিষয়ে উপচার্যের সহিত দেখা করতে চাইলে তিনি সেই সৌজন্য টা পর্যন্ত দেখাননি।

আমরা রবীন্দ্র আদর্শ নিয়ে চলছি এবং আশ্রমের একটি অংগ মনেকরি সেই হিসেবেই চলবে আমাদের কাজকর্ম।উপচার্য শুধু আমাদের সাথে না বিশ্বভারতীর অন্যান্যদের সাথে ও করছেন, এজন্য একটা মঞ্চ তৈরি হয়েছে, সেখানে আলাপিনী মহিলা সমিতি ও যুক্ত আছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

nine + 10 =