করোনা সচেতনতার বার্তা দিতে পথে হাঁটলেন রামপুরহাট মহকুমা শাসক সহ অন্যান্য আধিকারিকগন

This News is Presented by Shyam Sundar Jewellers

নিশির কুমার হাজরা, বীরভূম:  আসবে আসবে করে এসেই পড়ল করোনার তৃতীয় ঢেউ, ওমিক্রন। করোনার প্রথম ঢেউ, দ্বিতীয় ঢেউ পেরিয়ে এসেছে বিভিন্ন ঘাত প্রতিঘাতের মধ্যে। এবার ফের তৃতীয় ঢেউ ওমিক্রন এর আশঙ্কায় আশঙ্কিত সমস্ত মহল। যার পরিপ্রেক্ষিতে রাজ্য সরকার থেকে শুরু করে সমস্ত প্রশাসনিক মহল যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে ঝাঁপিয়ে পড়েছে করোনার মোকাবিলায়।

 

This news is sponsored by STP Tax Consultant

 

বীরভূম জেলায় জেলা প্রশাসন এর পক্ষ থেকে গত ২ জানুয়ারি থেকেই পিকনিক স্পট ও জমায়েত বন্ধ সহ স্যানিটাইজার, মাস্ক এর ব্যবহার, সামাজিক দূরত্ব বজায় ইত্যাদি সতর্কতা অবলম্বন করার জন্য প্রচার অভিযান চালানো হয় জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে।

সেদিন থেকেই জেলার প্রতি থানা এলাকায় মাইকিং এর পাশাপাশি মাক্স বিহীন ব্যাক্তিদের ধরপাকড় শুরু হয়েছে। মঙ্গলবার রামপুরহাট স্বাস্থ্য জেলার পক্ষ থেকে বুলেটিনে প্রকাশিত রামপুরহাট পৌরসভা এলাকায় ১১ জন করোনা আক্রান্ত।

রামপুরহাট শহরের প্রাণকেন্দ্রে পাঁচমাথার মোড় সহ পৌরসভার বিভিন্ন রাস্তায় পায়ে হেঁটে করোনা সচেতনতার বার্তা দিলেন স্বয়ং রামপুরহাট মহকুমা শাসক সাদ্দাম নাভাস, রামপুরহাট মহকুমা পুলিশ আধিকারিক শায়ন আহমেদ এবং রামপুরহাট পৌরসভার চেয়ারপার্সন মীনাক্ষী ভকত।করোনার ভয়াবহতা এবং মাস্ক এর গুরুত্ব বোঝালেন পথ চলতি মানুষ ও স্থানীয় দোকানদারদের, সেই সাথে মাক্স বিহীন ব্যাক্তিদের মাক্স বিতরণ করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

10 + 7 =