ইউরোপিয়ান ফুটবলের পরতে পরতে যৌনাচার! বিস্ফোরক মন্তব্য স্পেনের বিখ্যাত সাংবাদিক রোমান মলিনা!

This News is Presented by Shyam Sundar Jewellers

শান্তি রায়চৌধুরী: ইউরোপিয়ান ফুটবলের পরতে পরতে অবৈধ যৌনাচার ও অনিয়মের উপস্থিতি রয়েছে বলে জানিয়েছেন স্পেনের আন্দালুসিয়ার বিখ্যাত সাংবাদিক রোমাইন মলিনা। মলিনা অভিযোগের তীর ছুঁড়েছেন রিয়াল মাদ্রিদের ফরাসি ডিফেন্ডার ফারল্যান্ড মেন্দি, ম্যানচেস্টার সিটির বেঞ্জামিন মেন্দি, পিএসজিসহ বেশ কয়েকটি ফরাসি ক্লাবের দিকে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারের লাইভ ‘স্পেইস’-এ শুক্রবার (১৯ নভেম্বর) এসব বিষয় নিয়ে মুখ খুলেন মলিনা। তার অভিযোগ অনুসারে, ফারল্যান্ড মেন্দি ভয়াবহ মাত্রায় অ্যালকোহল আসক্ত। তিনি নাকি এক নারীকে যৌন হেনস্তা করার পাশাপাশি শারীরিক নির্যাতনও করেছেন। পরিবারের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য মায়ের সঙ্গেও ঝামেলা মেন্দির। প্রায় তিন বছর ধরে তিনি মায়ের সঙ্গে কথা বলেন না। এসব কারণেই নাকি চুপিচুপি মেন্দিকে রিয়াল মাদ্রিদে বিকিয়েছে ফরাসি ক্লাব লিওঁ। কারণ তারা মেন্দির এসব ব্যাপারে আগে থেকেই জানত।

এ বছরের আগস্টের শেষ দিকে ম্যানচেস্টার সিটির ফরাসি ফুটবলার বেঞ্জামিন মেন্দির বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছিল। এক-দুইটি না, ১৬ বছরের কাছাকাছি বয়সের তিনজনকে নাকি ধর্ষণ করেছেন এ ডিফেন্ডার। ধর্ষণের কারণে তাকে বহিষ্কার করেছে ইংল্যান্ডের ক্লাবটি। এরপর মেন্দি পুলিশি হেফাজতে যান, তাকে রিমান্ডেও নিয়েছে চেশায়ার পুলিশ। ইংল্যান্ডের পুলিশ জানিয়েছিল, ২০২০ সালের অক্টোবর থেকে চলতি বছরের আগস্ট মাস নাগাদ এই ঘটনাগুলো ঘটিয়েছেন ফরাসি তারকা।

This news is sponsored by STP Tax Consultant

মেন্দিকে নিষিদ্ধ করে ম্যানচেস্টার সিটি এক বিবৃতিতে বলেছিল, এটা একটা স্পর্শকাতর বিষয়। আমরা তাকে বহিষ্কার করব। সে কারণে আমরাও উপযুক্ত পদক্ষেপ নিচ্ছি মেন্ডির ব্যাপারে। ব্যাপারটা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। তবে ঘটনার সত্য-মিথ্যা প্রমাণিত হওয়ার আগে আমরা কোনো ধরনের মন্তব্য করতে পারছি না। মলিনা বলছেন, ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ, লিগ ওয়ান, ইগ টু এবং ইংলিশ চ্যাম্পিয়নশিপে খেলে এমন ৪০০ খেলোয়াড় অবৈধ যৌন কাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ছিলেন তাদের বাল্যকালে। লিগ ওয়ানের একটি দলের স্টাফ যুব দলের এক নারী খেলোয়াড়ের সঙ্গে যৌন কাণ্ডে লিপ্ত ছিলেন। পরে অনুনয়-বিনয় করে সেই খেলোয়াড়কে মুখ খুলা থেকে বিরত রাখে সেই ক্লাব, যার নাম মলিনা নির্দিষ্ট করে বলেননি।

আন্তজার্তিক পর্যায়ের এক কোচ ১৩ বছর বয়সী দুইজন খেলোয়াড়ের সঙ্গে জোরপূর্বক যৌন কাজে লিপ্ত হয়েছিলেন। মলিনা জানিয়েছেন, এশিয়ায় কিছু আন্তর্জাতিক ফুটবল ম্যাচ পাতানো হয়ে থাকে। আফ্রিকার কিছু দেশের ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতিরা যৌন কর্মী রাখেন। ফ্রান্স ফুটবল ফেডারেশন কিছু লোককে আফ্রিকায় চাকরি নিতে বাধ্য করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

one + twelve =