শতবর্ষের আলোয় বিশ্বভারতীর বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি ঘিরে পৌষমেলার ভবিষ্যত নিয়ে জল্পনা

This News is Presented by Shyam Sundar Jewellers

নিশির কুমার হাজরা, শান্তিনিকেতন: এ বছর শতবর্ষে পা রেখেছে দেশের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়। সেই উপলক্ষে শতাধিক গাছ পোঁতার কর্মসূচি নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। সেইমতো শুক্রবার সকাল থেকে দু’টি ভাগে বৃক্ষরোপণ শুরু হয়েছে পূর্বপল্লির পৌষ মেলার মাঠ এবং আশ্রম মাঠে।

 

This news is sponsored by STP Tax Consultant

আপাতভাবে এটি কর্মসূচি হলেও কর্তৃপক্ষের এই পদক্ষেপ ঘিরে নতুন বিতর্ক তৈরি হয়েছে। শান্তিনিকেতন বাসিন্দারা ও আশ্রমিকদের অভিযোগ, পৌষমেলা বন্ধ করার জন্য পরিকল্পনা করে মাঠ জুড়ে গাছ পুঁতে ফেলা হচ্ছে। হাত লাগিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মীরাও।

শুক্রবার বিশ্বভারতীর কর্মী পরিষদের উদ্যোগে পৌষমেলার মাঠে এবং আশ্রম মাঠে পলাশ, কৃষ্ণচূড়া এবং অমলতাস লাগানো হয়। ৫০টি গাছ পৌষমেলা মাঠে এবং বাকি ৫০টি আশ্রম মাঠে লাগানো হয়। যদিও বৃক্ষ রোপণের সময় এটা নয়। সাধারণ ভাবে বন দফতরের কর্মীরা বৃক্ষ রোপণের জন্য বর্ষাকালকেই বেছে নিয়ে বৃক্ষ রোপণের কাজ করে থাকেন। ফলে সাধারণ আমজনতা ও আশ্রম বাসিদের জল্পনা যুক্তি সঙ্গত বলে মনে করছেন অনেকেই।

এদিন এই গাছ লাগানো অনুষ্ঠানে উপাচার্য ছাড়াও বিশ্বভারতীর কর্মী, অধ্যাপকরা উপস্থিত ছিলেন। মেলার মাঠ পাঁচিল দিয়ে ঘেরা নিয়ে চলতি বছরের শুরুতে অশান্তির সময় প্রচুর গাছ ভেঙে গিয়েছিল। সেইসব জায়গাতেই এই গাছগুলি লাগানো হয় বলে অভিযোগ।

এদিকে, মেলার মাঠ, আশ্রম মাঠে শতাধিক গাছ লাগানো নিয়ে বিতর্ক দেখা দিয়েছে। আশ্রমিক এবং ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ মনে হয় আর পৌষমেলা করতে চাইছে না। তাই তারা পরিকল্পনা করে পৌষমেলার মাঠে বৃক্ষ রোপণ করছেন। প্রথমে মাঠ ঘিরে গেটগুলিতে তালা লাগিয়ে দেওয়া হয়েছে। সন্ধ্যার পর মাঠে পড়ুয়াদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। আর এবার গাছ লাগিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

 

বোলপুর ব্যবসায়ী সমতির পক্ষে সুনীল সিং এবং সুব্রত ভকত বলেন, ‘বিশ্বভারতী পৌষমেলা করবে না। তাই পরিকল্পনা করে গাছ লাগিয়ে দেওয়া হচ্ছে। আমরা এর প্রতিবাদ জানাচ্ছি,পৌষমেলা করার দাবি জানাচ্ছি।’

তবে কি সত্যিই পৌষমেলা হবে না? এখনও এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। এবার বৃক্ষরোপণের ঘটনায় পৌষমেলা চিরতরে বন্ধের আশঙ্কা করছেন সকলে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

2 × two =