পুরসভার ভোট একসঙ্গে চায়, নতুবা গণনা হোক একদিনে! মামলার পথে বিজেপি

This News is Presented by Shyam Sundar Jewellers

রাজ্য পুরসভা ভোট নিয়ে বিলম্ব করতে চাইছে না আর। সেই কারণেই ডিসেম্বরের মাঝামাঝি কলকাতা ও হাওড়া পুরসভার ভোট করার তোড়জোড় শুরু করে দিয়েছে রাজ্য। প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছে। বাকি পুরসভার ভোটও জানুয়ারিতেই করাতে উদ্যোগী রাজ্য। পুরসভা ভোট একসঙ্গে করার দাবি তুলল বিজেপি। আর তা একান্তই সম্ভব না হলে অন্তত একই দিনে গণনা করতে হবে, এ দিন এমনই দাবি করেছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার৷ ইতিমধ্যেই একসঙ্গে ভোটের আবেদন জানিয়ে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করার প্রক্রিয়াও শুরু হয়ে গিয়েছে বলে জানিয়েছেন বিজেপি-র রাজ্য সভাপতি৷

সোমবার রাজ্য বিজেপির সভাপতি সুকান্ত মজুমদার সাংবাদিক বৈঠক করে হুঁশিয়ারি দেন, রাজ্যের সবকটি পুরসভায় বকেয়া ভোট একসঙ্গে না হলে মামলা করা হবে। রাজ্য সরকার সবে প্রাথমিক পর্যায়ে পুরভোটের প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে। তারই মধ্যে রাজ্যের প্রধান বিরোধী দলের তরফে মামলার হুঁশিয়ারি দেওয়া হল।

This news is sponsored by STP Tax Consultant

শাসকদল যখন শতাধিক পুরসভা-পুরনিগমের মধ্যে মাত্র দু’টিতে সাত তাড়াতাড়ি ভোট চেয়ে নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দিয়েছে। পাল্টা বিজেপিও সোমবার দ্বারস্থ হল রাজ্য নির্বাচন কমিশনের। বিজেপি কমিশনের কাছে জানতে চায়, বাকিগুলি বাদ দিয়ে মাত্র দু’টোতে ভোট কেন হবে?জয়প্রকাশ মজুমদারের বক্তব্য, রাজ্যের নির্বাচনী বিধি অনুযায়ী পাঁচ বছরের মধ্যে নির্বাচন করতে হবে। করোনার দোহাই দিয়ে ভোট করেনি রাজ্য। কোনওটার মেয়াদ শেষ হয়েছে দু’বছর, কোনওটায় তিন বছর, কোনওটা আবার এক বছর। বিজেপির তরফে চিঠি দিয়ে বলা হয়েছে, রাজ্য সরকারের কোনও অধিকার নেই বেছে বেছে নির্বাচন করানোর। দু’টোয় হবে, বাকিগুলিতে কেন হবে না?

সুকান্তর দাবি, রাজ্যের সমস্ত পুরসভায় যদি একসঙ্গে ভোট হয়, তা লড়ার ক্ষমতা রয়েছে বিজেপির। রাজ্যে ১১৪টি পুরসভায় ভোট বাকি, আর রাজ্য সরকার চাইছে শুধু কলকাতা ও হাওড়ার ভোট করাতে। প্রতিটি পুরসভা চলছে প্রশাসক দিয়ে। বছরাবধি কাল এই পরিস্থিতিতে জনস্বার্থ বিঘ্নিত হচ্ছে। মানুষ পরিষেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। তাই চটজলদি পুরভোট করার দাবিতে সরব হল বিজেপি।

প্রসঙ্গত এ রাজ্যে পুরসভা ও পুরনিগম মিলিয়ে মিশিয়ে রয়েছে ১২৫টি। এর মধ্যে ১১৮টি পুরসভা, ৭টি পুরনিগম। সর্ববৃহৎ পুরনিগম কলকাতা। ১৪৪টি ওয়ার্ড। সোমবারই এই পুরভোট নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয়েছে। প্রধান বিচারপতির এজলাসে দায়ের হওয়া এই মামলায় বলা হয়েছে, মাত্র দু’টি কেন, বাকিগুলোতে কেন ভোট নয়?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

1 × 1 =