বইছে উত্তরের হাওয়া, বৃষ্টির পর থেকেই একলাফে অনেকটা কমল তাপমাত্রা

This News is Presented by Shyam Sundar Jewellers

বৃষ্টির পর থেকেই একলাফে অনেকটা কমল তাপমাত্রা। পশ্চিমী ঝঞ্ঝার জেরে বুধ ও বৃহস্পতিবার সামান্য বৃষ্টিও হয়েছে দক্ষিণবঙ্গে। শুক্রবার অনেকটাই কমল তাপমাত্রা। বছরের শেষদিনে পশ্চিমী ঝঞ্ঝার বিপদ কাটলেও এখন বৃষ্টি-কাঁটা থেকে মুক্তি মেলেনি। অন্তত এমনটাই বলছে হাওয়া অফিস। কলকাতায় আজকের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৫.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২২.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস যা স্বাভাবিকের থেকে ৩ ডিগ্রি কম। আগামী ৪৮ ঘন্টা পর থেকে তাপমাত্রা আরও নামার পূর্বাভাস। জানুয়ারী মাসের ৪ তারিখের পর ফের একলাফে অনেকটা কমতে পারে তাপমাত্রা।

আলিপুর হাওয়া অফিস সূত্রে খবর, কিছুদিন আগে তৈরি হওয়া পশ্চিমী ঝঞ্ঝার জের কেটেছে। শুক্রবার থেকেই হাওয়া-বদল হতে পারে বলে আগেই জানিয়েছিলেন আবহবিদরা। সেইমতোই দেখা গেল, ঝঞ্ঝা কাটতেই উত্তুরে হাওয়ায় বঙ্গ জুড়ে শীতের আমেজ। বছরের শেষ শুক্রবারে সকালের দিকে খানিক কুয়াশা থাকলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তা  অনেকটাই স্বাভাবিক হবে। অর্থাৎ রোদের দেখা মিলবে। আগামী কয়েকদিনও পারদ নিম্নমুখী বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস।

This news is sponsored by STP Tax Consultant

শুক্রবার থেকেই রাজ্যের একাধিক জেলাতে পারদ পতনের সম্ভাবনার কথা রয়েছে। আর নতুন বছরের শুরু থেকেই রাজ্যজুড়ে পড়বে জাঁকিয়ে শীত, এমনটাই খবর আলিপুর আবহাওয়া অফিস সূত্রে। পশ্চিমী ঝঞ্ঝার জন্য রাজ্যে শীতের দাপট বাধাগ্রস্ত হয়েছে। সেই ঝঞ্ঝা কেটেছে। যার জেরে এই মুহূর্তে স্বাভাবিকের থেকে যে তিন-চার ডিগ্রি তাপমাত্রা বেড়ে রয়েছে রাজ্যজুড়ে, সেটা নেমে পৌঁছবে স্বাভাবিকের কাছাকাছি। কোথাও কোথাও তা নামতে পারে স্বাভাবিক তাপমাত্রার থেকে নিচেও।

সোমবার সকালের মধ্যে দক্ষিণবঙ্গের সবকটি জেলার আবহাওয়া শুকনো থাকবে। উত্তরবঙ্গের মতোই আগামী দিন দুয়েকে রাতের তাপমাত্রা ৩-৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মতো নেমে যেতে পারে। পশ্চিমের জেলাগুলিতে ন্যূনতম তাপমাত্রা চলে যেতে পারে ১০ থেকে ১২ ডিগ্রিতে। পশ্চিমী ঝঞ্ঝার প্রভাবে টাইগার হিলে তুষারপাত হচ্ছে। বরফের সাদা চাদরে মুড়েছে শৈলরানি। আপাতত, শীত আসছে না। আপাতত, শীতের জন্য অপেক্ষাই সম্বল বলছেন আবহবিদরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

fourteen − thirteen =