সিনেমার ঘটনাকেও হার মানাবে এ কাহিনী! রাতারাতি কোটি টাকার মালিক হলেন ছাপোষা রিক্সাচালক

This News is Presented by Shyam Sundar Jewellers

শর্মিষ্ঠা চ্যাটার্জী: বাস্তবের মাটিতে এ যেনো স্বপ্নের মত! শুনতে অবাক লাগলেও এটাই সত্যি। ওড়িশার সুতাহাট এলাকার মিনতি পট্টনায়েকের উদারতা মুগ্ধ করেছে আমাদের। মন ছুঁয়ে গেছে এ কাহিনী পাঠকদের।

 

This news is sponsored by STP Tax Consultant

 

আসুন তবে জেনে নেই ঘটনাটি কি, ওড়িশার কটকের সুতাহাট এলাকার বছর ৬৩এর বৃদ্ধা মিনতি পট্টনায়েক, যিনি নিজের সমস্ত স্থাবর অস্থাবর সম্পত্তি এক রিকশাচালকের নামে লিখে দিলেন, যে ঘটনায় চমকে গিয়েছেন সমস্ত কটক বাসী তথা সমস্ত পাঠকরা। দীর্ঘ ২৫ বছর ধরে ওই রিকশাচালকের সেবার প্রতিদান হিসেবে তিনি তাঁর সমস্ত সম্পত্তি তাঁর নামে লিখে দেন।

জানা গিয়েছে, গত বছর ওই বৃদ্ধার স্বামী মারা যাওয়ার পরবর্তী সময় থেকেই সময়ে অসময়ে সমস্ত প্রয়োজনে ওই রিক্সাওয়ালা তাঁর পাশে থেকেছেন। প্রতিটা খারাপ মুহূর্তে তাঁকে বিভিন্নভাবে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন।

ওই বৃদ্ধা জানিয়েছেন, ‘আমার স্বামী ও মেয়ের মৃত্যর পর থেকে আমি মারাত্মকভাবে ভেঙে পড়ি। সেইসময় আমার কোনো আত্মীয় আমার পাশে ছিলনা। আমি সম্পূর্ণ একা হয়ে গিয়েছিলাম। এই কঠিন সময়ে বুধা ও তাঁর পরিবার আমার পাশে দাঁড়িয়েছে। বিনিময়ে কোনো কিছু পাওয়ার আশা ছাড়াই তাঁরা আমার দেখভাল করেছে।আমার স্বাস্থ্যের যত্ন নিয়েছে। আমার আত্মীয়দের অনেক সম্পত্তি, আমি তাই বরাবরই চাইতাম মৃত্যুর আগে আমার সম্পত্তি গরীব দুঃখীদের দিয়ে যেতে।’ আরও জানা গিয়েছে, তাঁর এই সম্পত্তি হস্তান্তরের সিদ্ধান্তে বিরোধী ছিলেন তাঁর এক বোন, কিন্তু তিনি আইনি সহায়তায় সমস্ত ব্যবস্থা করেছেন যাতে ওনার অবর্তমানে সমস্ত সম্পত্তি বুধার হাতে হস্তান্তরিত হয়।

এত বিশাল প্রাপ্তিতে আপ্লুত ওই রিক্সাচালক বুধা, তিনি বলেন, ‘আমি দীর্ঘদিন ধরে মায়ের সবরকম খেয়াল রাখার চেষ্টা করেছি, আগামী দিনেও সেটা করে যাবো।’

আজকের পৃথিবীতে দাঁড়িয়ে এমন কিছু ঘটনা যেনো আবারও আমাদের মুগ্ধ করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

1 × 3 =