বর্ষবরণের রাতে বৈষ্ণোদেবী মন্দিরে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা, পদপিষ্ট হয়ে মৃত ১২, শোকপ্রকাশ মোদীর

This News is Presented by Shyam Sundar Jewellers

বর্ষবরণের রাতে বৈষ্ণোদেবী মন্দিরে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা। শনিবার ভোরে জম্মু ও কাশ্মীরের কাটরায় মাতা বৈষ্ণো দেবীর মন্দিরে পদপিষ্ট হয়ে কমপক্ষে ১২ জন নিহত এবং ১৪ জন আহত হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলেই আশঙ্কা। আহতদের নারায়ণী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।আহতদের অনেকেরই শারীরিক অবস্থা ‘গুরুতর’ বলে জানানো হয়েছে প্রশাসন ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের তরফে। মন্দির চত্বরে মোতায়েন করা হয়েছে পুলিস। মৃতদের মধ্যে বেশ কয়েকজন দিল্লি, হরিয়ানা,পাঞ্জাব এবং একজন জম্মু ও কাশ্মীরের বাসিন্দা।

নিহতদের মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। জম্মু ও কাশ্মীরের ডিজিপি দলবীর সিং-এর তথ্য অনুযায়ীস পদপিষ্ঠ হয়েছ আহত ১৩ জন। বর্ষবরণের রাত ২.৪৫ নাগাদ ঘটনাটি ঘটে বলে প্রাথমিক রিপোর্টে বলা হয়েছে। ভিড়ের মধ্যে বচসা, ধাক্কাধাক্কি থেকেই মর্মান্তিক এই ঘটনার সূত্রপাত।

This news is sponsored by STP Tax Consultant

জানা গিয়েছে, ‘অনুমতি পত্র’ ছাড়াই বহু ভক্ত ভোরে ঢুকে যান বৈষ্ণো দেবী মন্দিরে। এরপরই হুড়োহুড়িতে এই দুর্ঘটনা ঘটে। এদিকে ঘটনার পরই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং পৌঁছে যান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর অফিসে। জিতেন্দ্র টুইট করে জানান, প্রধানমন্ত্রী ঘটনার হতিপ্রকৃতির উপর নজর রাখছেন। আহতদের সকল ধরনের চিরিত্সা পরিষেবা প্রদানেরও নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী নিহত ও তাদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী টুইট করে লিখেছেন, “মাতা বৈষ্ণোদেবী ভবনে পদদলিত হয়ে প্রাণহানির ঘটনায় অত্যন্ত দুঃখিত। শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা। আহতরা শীঘ্রই সুস্থ হয়ে উঠুক”। মর্মান্তিক ঘটনায় যারা প্রাণ হারিয়েছেন তাদের প্রত্যেকের জন্য মোদী ১০ লক্ষ এবং আহতদের ২ লক্ষ করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

fourteen + 3 =