নজরে ত্রিপুরার নির্বাচন, প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার টাকা পেলেন প্রায় দেড় লক্ষ মানুষ

This News is Presented by Shyam Sundar Jewellers

আগরতলা পুরনিগম-সহ ত্রিপুরার মোট ১৩টি পুরসভা এবং নগর পঞ্চায়েতের নির্বাচন। পুরভোটকে নজরে রেখে ইতিমধ্যেই প্রচার শুরু করে দিয়েছে রাজনৈতিক দলগুলি। জারি হয়েছে আদর্শ নির্বাচনী আচরণ বিধি। ভোটমুখী ত্রিপুরার জন্য প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার প্রথম কিস্তির টাকা বরাদ্দ করলেন নরেন্দ্র মোদী। ৭০৯ কোটি টাকায় তৈরি হবে ১ লক্ষ ৪৭ হাজার বাড়ি।

প্রধানমন্ত্রীর অফিসের তরফে জারি করা বিবৃতি অনুযায়ী, ত্রিপুরার ভূ-জলবায়ুগত অবস্থাকে বিবেচনায় রেখে রাজ্যের বসবাস করা এক বিরাট অংশের মানুষের কাঁচা ঘরের সংজ্ঞা বদল করা হচ্ছে। কেন্দ্রের প্রকল্পের ফলে একটা বড় অংশের উপভোক্তা পাকা বাড়ি তৈরির জন্য সাহায্য পাবেন। যেসব বাড়িগুলি বাঁশ, মাটি-খড় দিয়ে তৈরি অর্থাৎ যাদের এক কথায় কাঁচা বাড়ি বলে, প্রধানমন্ত্রী আবাস যএাজনায় সেইসব বাড়ি পাকা করে দেওয়া হবে।

This news is sponsored by STP Tax Consultant

মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব সরকারেরও ভূয়সী প্রশংসা করেছেন মোদি। সেই সঙ্গে তাঁর মুখে উঠে এসেছে ডবল ইঞ্জিন সরকারের প্রশস্তিও। প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আমি বিপ্লব দেব এবং তার সরকারকে এত অল্প সময়ের মধ্যে পুরানো কাজ করার পদ্ধতি এবং পুরানো মনোভাব পরিবর্তন করার জন্য ধন্যবাদ জানাই। বিপ্লব দেব যে তারুণ্যের শক্তি নিয়ে কাজ করছেন, সেই শক্তি আজ ত্রিপুরা জুড়ে দেখা যাচ্ছে।”
উল্লেখ্য, সামনেই ত্রিপুরায় পৌরভোট রয়েছে। আর তার আগে ত্রিপুরাবাসীর জন্য এই প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার প্রথম কিস্তির টাকা বরাদ্দ করা নিঃসন্দেহে কেন্দ্রের এক কৌশলী চাল বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের একাংশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

one + 18 =