নিয়ম না মেনে রাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে উপাচার্য নিয়োগ করা হয়েছে: রাজ্যপাল

This News is Presented by Shyam Sundar Jewellers

নিয়ম না মেনে রাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে উপাচার্য নিয়োগ করা হয়েছে। নিয়মবহির্ভূতভাবে উপাচার্য নিয়োগ করে আইনের অবমাননা করেছে রাজ্য সরকার এবং সংশ্লিষ্ট দফতরের অনুমতি নেওয়া হয়নি, এমনটাই অভিযোগ করছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় টুইটে লিখেছেন , ‘নিয়ম বহিভূর্তভাবে আচার্যের অনুমতি ছাড়াই উপাচার্যের নিয়োগ করা হয়েছে। এই নিয়োগ সম্পূর্ণ অবৈধ। এই নিয়োগের বিরুদ্ধে দ্রুত পদক্ষেপ করা হবে।’ সেই অভিযোগের সঙ্গে দুর্নীতিতে জড়িত ২৪ টি বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকাও প্রকাশ করেছেন রাজ্যপাল।

টুইটে যে তালিকা প্রকাশ করেছেন রাজ্যপাল সেখানে তিনি ২৪টি রাজ্য সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম দিয়েছেন। কলকাতা, যাদবপুর–গৌরবঙ্গ, আলিপুরদুয়ার, বর্ধমান–সহ রাজ্যের ২৪টি বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়ম বহির্ভূতভাবে উপাচার্য নিয়োগ করা হয়েছে বলে অভিযোগ তুললেন রাজ্যপাল। রাজ্যপালের মতে উপাচার্য নিয়োগের ক্ষেত্রে আচার্যের সম্মতি লাগে। এই ২৪টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে এই সম্মতি নেওয়া হয়নি। এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে, তার টুইটে জগদীপ ধনকড় স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, উপাচার্য নিয়োগের এই সিদ্ধান্ত অবিলম্বে প্রত্যাহার করা না হলে নির্দিষ্টভাবে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।  শিক্ষা দফতরের দিকে এই মুহূর্তে অভিযোগ রাজ্যপালের। তার বক্তব্য এই বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে নিয়মবহির্ভূতভাবে উপাচার্য নিয়োগ করেছে রাজ্য সরকার।

This news is sponsored by STP Tax Consultant

উপাচার্য নিয়োগের নিয়ম অনুযায়ী শিক্ষা দফতর উপাচার্য নিয়োগের জন্য ৩টি নাম পাঠানো হত আচার্যের কাছে সেখান থেকে উপাচার্য পদের জন্য একটি নাম বেছে নিতেন আচার্য। বামআমলের এই নিয়মের পরিবর্তন ঘটায় তৃণমূল কংগ্রেস সরকার। উপাচার্য নিয়োগের জন্য ৩ জনের সার্চ কমিটি গঠন করা হয়। তাতে সরকারের পক্ষের একজন, আদালতের পক্ষে একজন এবং রাজ্যপালের পক্ষ থেকে একজন মোট তিনজন প্রতিনিধি নিয়োগ করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

two × 5 =